উইন্ডোজের (Windows) কিবোর্ড শর্টকাট

সর্বশেষ আপডেট:

উইন্ডোজ (Windows) অপারেটিং সিস্টেমে বেশ কিছু কিবোর্ড শর্টকাট রয়েছে যেগুলো প্রয়োগ করে বিভিন্ন কাজ আরো সহজে ও দ্রুত করা যায়। এখানে গুরুত্বপূর্ণ কিছু কিবোর্ড শর্টকাট দেয়া হলো। কিবোর্ডের উইন্ডোজ কি বুঝাতে চিহ্নটি ব্যবহৃত হয়েছে।

সাধারণ কিছু শর্টকাট:

এই শর্টকাটসমূহ হলো উইন্ডোজের ডিফল্ট শর্টকাট এবং বিভিন্ন অ্যাপে সাধারণত একই রকম কাজ করে থাকে।

Escবর্তমান কাজ বন্ধ করতে। বিভিন্ন Alert, ডায়ালগ বক্স বন্ধ করতে।
Ctrl + EscStart চালু বা বন্ধ করা। (উইন্ডোজ কি চাপলেও একই কাজ হয়)
Ctrl + Shift + EscTask Manager ওপেন করা।
F5বর্তমান উইন্ডো রিফ্রেশ করা। (Ctrl + R এর মতো)
F10মেনুবার সক্রিয় করা।
F11Full Screen Mode চালু বা বন্ধ করা।
Shift + F10সিলেক্টকৃত আইটেমে শর্টকাট মেনু ওপেন হবে। (মাউসের ডান বোতাম চাপলে যে মেনু আসে সেটা)
Ctrl + Aসকল আইটেম সিলেক্ট হবে।
Ctrl + Cসিলেক্টকৃত আইটেম কপি করা। (Ctrl + Insert)
Ctrl + Xসিলেক্টকৃত আইটেম কাট করা।
Ctrl + Vকপি বা কাটকৃত আইটেম পেস্ট করা। (Shift + Insert এর মতো)
Ctrl + Yআগের কাজ পুনরায় করা (Redo an action)
Ctrl + Zকোনো কাজ করার পর আগের অবস্থায় ফিরে যেতে। (Undo an action)
Ctrl + Fকোনোকিছু খুঁজতে (Find)
Ctrl + Nনতুন ডকুমেন্ট বা নতুন উইন্ডো খুলবে।
Ctrl + Rবর্তমান উইন্ডো রিফ্রেশ করা। (F5 এর মতো)
Ctrl + Wবর্তমান ডকুমেন্ট বন্ধ করা। (অনেকটা Ctrl + F4 এর মতো)
Ctrl + Insertসিলেক্টকৃত আইটেম কপি করা। (Ctrl + C এর মতো)
Shift + Insertকপি বা কাটকৃত আইটেম পেস্ট করা। (Ctrl + V এর মতো)
Alt + Tabচালুকৃত অ্যাপগুলোর মধ্যে আবর্তন/পরিভ্রমণ করা। (বামদিক থেকে ডানদিকে মুভ করবে)
Shift + Alt + Tabচালুকৃত অ্যাপগুলোর মধ্যে আবর্তন/পরিভ্রমণ করা। (ডানদিক থেকে বামদিকে মুভ করবে)
Alt + Escওপেন করার ক্রম অনুযায়ী চালুকৃত অ্যাপগুলোর মধ্যে আবর্তন/পরিভ্রমণ করা।
Alt + F4কোনো আইটেম বন্ধ করতে। কিংবা কোনো অ্যাপ থেকে বের হয়ে যেতে (Exit) ।
ডেস্কটপে থাকা অবস্থায় Shut Down Windows ডায়ালগ বক্স ওপেন হবে।
Ctrl + F4বর্তমান ডকুমেন্ট বন্ধ করা। (অনেকটা Ctrl + W এর মতো)
Alt + F8Sign-in স্ক্রিনে পাসওয়ার্ড দেখতে।
Alt + Spacebarবর্তমান উইন্ডোর Shortcut Menu ওপেন করা।
Alt + underlined letterAlt বোতামের সাথে কোনো মেনুর আইটেমে আন্ডারলাইনকৃত অক্ষর চাপলে, সংশ্লিষ্ট আইটেমের কাজটি সম্পাদিত হবে।
Shift + Arrow Keysএকাধিক আইটেম বা কোনো টেক্সট সিলেক্ট করা।
Homeকোনো ডকুমেন্ট বা ফোল্ডারের শুরুতে যেতে।
Endকোনো ডকুমেন্ট বা ফোল্ডারের শেষে যেতে।
Page Upএক স্ক্রিন উপরে উঠে যাবে।
Page Downএক স্ক্রিন নিচে নেমে যাবে।
PrtScnদৃশ্যমান স্ক্রিনের পুরোটার একটি ছবি/স্ক্রিনশট ক্লিপবোর্ডে কপি হবে।

ফাইল এক্সপ্লোরার (File Explorer) বা উইন্ডোজ এক্সপ্লোরার (Windows Explorer) সংক্রান্ত শর্টকাট:

উইন্ডোজে আমরা যে অ্যাপের সাহায্যে ফোল্ডার ও ফাইলসমূহ অ্যাক্সেস (Access) করি ও দেখে থাকি সেটাই হলো ফাইল এক্সপ্লোরার। Windows 7 ও তার আগের ভার্সনগুলোতে এর নাম ছিলো উইন্ডোজ এক্সপ্লোরার।

ফাইল এক্সপ্লোরারের ক্ষেত্রে উপরে বর্ণিত সাধারণ শর্টকাটসমূহও প্রযোজ্য। যেমন Ctrl + A দ্বারা সকল ফাইল ও ফোল্ডার সিলেক্ট হবে। Ctrl + C চাপলে সিলেক্টকৃত ফাইল/ফোল্ডার কপি হবে। কোনো ফাইলের নাম পরিবর্তন করার পরপরই Ctrl + Z চাপলে, আগের নাম ফিরে আসবে। ফাইল এক্সপ্লোরারে এসব শর্টকাটের অতিরিক্ত আরও কিছু শর্টকাট আছে যেগুলো নিচে দেয়া হলো।

+ EFile Explorer চালু হবে।
F2সিলেক্টকৃত আইটেমের নাম পরিবর্তন (Rename) করা।
F3কোনো ফাইল বা ফোল্ডার সার্চ করতে। (Ctrl + E এবং Ctrl + F এর মতো)
F4Address Bar-এর ড্রপডাউন লিস্ট ওপেন হবে।
F5রিফ্রেশ করা। একইভাবে ডেস্কটপও রিফ্রেশ করা যায়। (Ctrl + R এর মতো)
F6স্ক্রিনে বা ডেস্কটপে দৃশ্যমান বিভিন্ন আইটেমের মধ্যে আবর্তন/পরিভ্রমণ করতে। (Tab চাপলেও একই রকম হয়)
Ctrl + Dসিলেক্টকৃত আইটেম ডিলিট হয়ে Recycle Bin-এ চলে যাবে। (Delete এর মতো)
Ctrl + Eকোনো ফাইল বা ফোল্ডার সার্চ করতে।
Ctrl + Fকোনো ফাইল বা ফোল্ডার সার্চ করতে।
Ctrl + Nনতুন উইন্ডো খুলবে।
Ctrl + Rরিফ্রেশ করা। (F5 এর মতো)
Ctrl + Wউইন্ডোজ এক্সপ্লোরারের বর্তমান যে উইন্ডোটি সক্রিয় আছে তা বন্ধ হবে।
Ctrl + Shift + Nনতুন ফোল্ডার তৈরি হবে।
Deleteসিলেক্টকৃত আইটেম ডিলিট হয়ে Recycle Bin-এ চলে যাবে। (Ctrl + D এর মতো)
Shift + Deleteসিলেক্টকৃত আইটেম Recycle Bin-এ জমা না হয়ে চিরতরে মুছে যাবে। এই কাজটি Undo করা যায় না।
Alt + Enterসিলেক্টকৃত আইটেমের প্রোপার্টি দেখা।
Alt + DAddress Bar সিলেক্ট করতে।
Alt + আগে যে ফোল্ডার ওপেন করা হয়েছে সেখানে যেতে। (Backspace এর মতো)
Alt + পরে যে ফোল্ডার ওপেন করা হয়েছে সেখানে যেতে।
Shift + Arrow Keysএকাধিক আইটেম সিলেক্ট করতে।

উইন্ডোজ কি সংক্রান্ত শর্টকাটসমূহ:

উইন্ডোজ কি সহযোগে যেসব শর্টকাট রয়েছে তা এখানে দেয়া হলো।

Windows Key Start চালু বা বন্ধ করতে। (Ctrl + Esc এর মতো)
+ Dসরাসরি ডেস্কটপে যেতে কিংবা আগের অবস্থায় ফিরে আসতে।
+ EFile Explorer চালু হবে।
+ ISettings চালু করতে।
+ Lপিসি লক করা।
+ Mসব উইন্ডো মিনিমাইজ করা।
+ Shift + Mমিনিমাইজকৃত উইন্ডোগুলো আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে।
+ PDisplay সিলেক্ট করা।
+ RRun ডায়ালগ বক্স চালু করা।
+ Sসার্চ চালু করা।
+ Tটাস্কবারের আইকনগুলোতে আবর্তন/পরিভ্রমণ করতে।
+ Xউইন্ডোজের বিভিন্ন ইউটিলিটি সম্বলিত মেনু ওপেন হবে। (স্টার্ট-এ রাইট ক্লিক করলেও একই কাজ হয়)
+ <,সাময়িকভাবে ডেস্কটপ দেখতে।
+ Pauseসিস্টেমের প্রোপার্টি দেখতে।
+ বর্তমান উইন্ডো ম্যাক্সিমাইজ করা।
+ বর্তমান উইন্ডো Restore Down করা। আর ইতোমধ্যে Restore Down করা থাকলে মিনিমাইজ করা।
+ বর্তমান উইন্ডো Restore Down হবে এবং স্ক্রিনের বামপাশের অর্ধেক অংশের পুরোটা দখল করবে।
+ বর্তমান উইন্ডো Restore Down হবে এবং স্ক্রিনের ডানপাশের অর্ধেক অংশের পুরোটা দখল করবে।
+ Homeবর্তমান উইন্ডো ব্যতীত বাকি সব উইন্ডো মিনিমাইজ হয়ে যাবে। দ্বিতীয়বার চাপলে আগের অবস্থায় ফিরে আসবে।
+ Spacebarউইন্ডোজের ডিফল্ট ইনপুট ল্যাঙ্গুয়েজ ও কিবোর্ড লেআউট পরিবর্তিত হবে। (যদি একাধিক ইনপুট ল্যাঙ্গুয়েজ ও কিবোর্ড চালু করা থাকে)
+ Ctrl + Spacebarপূর্বের ইনপুট ল্যাঙ্গুয়েজ ও কিবোর্ড লেআউটে ফিরে যাবে।
+ +Magnifier অ্যাপটি চালু হবে।

কৃতজ্ঞতা:

শেয়ার, কমেন্ট, মেইল বা প্রিন্ট করুন

Leave a Reply